প্রফেশনাল ই-কমার্স ওয়েবসাইট বানানো শিখুন, বাংলাদেশ থেকেই ইনকাম করুন লাখ লাখ টাকা।

বর্তমানে সারা বিশ্বে ই-কমার্স বিজনেস খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এমাজন বা আলিবাবা বিশ্ব ব্যাপি তাদের একটি বিশাল মার্কেট প্লেস তৈরি করে ফেলেছে শুধু এই ইকর্মাস বিজনেস দ্বারা। আজ ছোট বড় সকল দেশেই ই-কমার্স বিজনেসের চাহিদা অনেক বেশি। একটি ই কমার্স ওয়েব সাইট বানাতে ১৫০০০ থেকে ৫ লক্ষ টাকার বেশিও খরচ হতে পারে। তাই আপনি নিজেকে একজন Wordpress Developer হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করে, বাংলাদেশে বসেই মাসে লাখ লাখ টাকা আয় করতে পারেন।

আপনি আপনার সাইটটি কি দিয়ে বানাবেন? একদম কাস্টম প্ল্যাটফর্ম বানানোর চেয়ে কোন প্রতিষ্ঠিত সিএমএস (যেমন ওয়ার্ডপ্রেস বামাজেন্টো) ব্যাবহার করা অনেক নিরাপদ। এছাড়া, সিএমএস এ পরবর্তীতে সংজোজন, বিয়োজন বা হালনাগাদ করা অনেক সহজ। কাস্টম প্ল্যাটফর্ম বানানোর সময় আপনাকে খুটিনাটিসকল বিষয় নিয়ে চিন্তা করতে হবে। ই-কমার্স সম্পর্কে পূর্ব অভিজ্ঞতা না থাকলে এইক্ষেত্রে অনেক কিছু বাদ পরে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে ও পরে পস্তাতে হয়।

উকমার্সের জন্য কেনো ওয়ার্ডপ্রেস?

ই-কমার্সের জন্য কেনোই বা ওয়ার্ডপ্রেস – অন্য কোনো ওয়েব কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম কেনো নয় ; এমন প্রশ্ন অনেক টেক গীকদের মাথায় থাকতেই পারে। তবে ওয়ার্ডপ্রেস এখানে ভালো পছন্দ হতে পারে খুব সহজে বোধগম্য ইন্টারফেস এর কারনে। অনলাইনে আপনি কোনো ডেভেলপার এর কাছ থেকে ইকমার্স সাইট বানিয়ে নিতে গেলে আপনি বেশির ভাগ সময় দেখবেন ; তারা ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করছে। যেহেতু ওয়ার্ডপ্রেস পুরোপুরি ভাবে একটি ফ্রী বা ওপেন সোর্স সিএমএস তাই এটি ব্যবহার করে ই-কমার্স বানাতে অত্যান্ত কম অর্থ খরচ হয়। ওয়ার্ডপ্রেস সিকিউরিটির দিক দিয়ে অনেক শক্তপক্ত হওয়ার কারনে এখানে গ্রাহকদের তথ্য নিরাপদ রাখা সম্ভব হয় এবং ই-কমার্স সাইট হ্যাক হওয়ার ভয় অনেক কম থাকে।

প্লাগিন ব্যবহার করে ই-কমার্স সাইট

ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে খুবই সুন্দর একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব হয়েছে এই ই-কমার্স নামক প্লাগিনটির জন্য।ই-কমার্স ওয়ার্ডপ্রেস এর মূল প্রতিষ্ঠান অটোমেটিক এর তৈরি একটি গ্র্যান্ড ওয়ার্ড প্রেস প্লাগিন।এটি যে কোনো ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটকে ই-কমার্স রেডি করে তোলে।

প্রথমত আমাদেরকে ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল করে নিতে হবে আমাদের সার্ভার বা হোস্টিং প্যানেলে; আর কী ভাবেএটি করতে হবে তা জানতে ক্লিক করতে পারেন।যা হোক, আমরা এখানে ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল এর সময় বা পরে কোনো থীম বাছাই করবনা।কারণ আমরা ই-কমার্স এর প্রদত্ত স্টোরফ্রন্ট থিমটি ব্যবহার করব।

ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল শেষ হয়ে গেলে, আমাদের ওয়ার্ডপ্রেসের এডমিন প্যানেল - তথা ড্যাসবোর্ডে প্রবেশ করতে হবে।আর এখানে থেকে আমরা প্লাগিনস তার পর সেখানে Add New-তে গিয়ে WooCommerce লিখে সার্চ করব।তারপর সেই প্লাগিনটি ইনস্টল- এর পর অ্যাক্টিভেটেড করে নিব।এরপর আমাদের ই-কমার্স প্লাগিনটিকে সেটআপ করে নিতে হবে।আর এই সেট আপ এমন কোনো কঠিন বিষয় নয় যে, পয়েন্ট টু পয়েন্ট বলতে হবে।এখানে আপনার পেমেন্ট মেথড, শপ ঠিকানা, পেমেন্ট কারেন্সি, শিপিং চার্জ এসব দিয়ে সেটআপ করে নিতে হবে।সাইটকে অটোমেটিক এর আরেকটি সার্ভিস জেট প্যাকের সঙ্গে কানেক্ট করতে বলবে।

এরপর প্লাগিন রেডি হয়ে গেলে, সাধারণত আমাদের ই-কমার্সের অফিসিয়াল একটি থিম স্টোরফ্রন্ট ব্যবহার করতে বলবে।এটি দেখতে খুবই সুন্দর, রেস্পনসিভ আর ওয়ার্ডপ্রেসের জন্য ব্যাপকভাবে অপটিমাইজড মোটামোটি ফ্রি।তবে আপনি ফ্রি এবং পেইড আরো শত শত আরো দারুণ থিমস খুঁজে নিয়ে লাগাতে পারবেন সেক্ষেত্রে সেগুলোর থিম এডিট- এর টিউটোরিয়াল আলাদা।আর আপনাকে সেজন্য সেসব থিমের ডকুমেন্টেশন অনুসরণ করতে হবে।

যা হোক, প্লাগিন রেডি হওয়ার পর আপনাকে স্টোর ফ্রন্ট থিমকে কাস্টমাইজড করার জন্য বলা হবে।আর এটি করা খুবই সহজ।আপনি যখন খুশি তখন এই কাজটি করতে পারবেন।কেবল Appearance থেকে Customize এ চাপ দিলেই আপনি থিম এডিট করতে পারছেন।

ড্যাসবোর্ড থেকে নতুন কোনো প্রোডাক্ট যুক্ত করাও অনেক সহজ; আর এক্ষেত্রে Products ট্যাব থেকে Add New Product ক্লিক করে নতুন প্রোডাক্ট যুক্ত করা যাবে। All Products থেকে আগের প্রোডাক্ট, নতুন প্রোডাক্ট সব দেখা যাবে এবং এগুলো ডিলিট বা এডিটও করা যাবে।

একইভাবে WooCommerce ট্যাব থেকে যাবতীয় অর্ডার থেকে শুরু করে, রিপোর্ট বা অর্ডার এর পরবর্তী অবস্থা বা স্ট্যাটাস ইত্যাদি বিষয় পর্যবেক্ষণ করা যাবে।

উকমার্স মূলত কেবল ওয়ার্সপ্রেসের ই জন্য তৈরি একটি ওপেন সোর্স একটি সফটওয়্যার; আর যাকে প্লাগিন আকারে ওয়ার্ডপ্রেসের সঙ্গে যুক্ত করার মাধ্যমে ওয়ার্ডপ্রেসকে পুরোপুরি ভাবে একটি ই-কমার্স প্লাটফর্মে রূপান্তরিত করা যায়।আপনি একটি ই-কমার্স সাইটের জন্য এমন কোনো কিছু নেই, যা এখানে যুক্ত করতে পারবেননা বা খুঁজে পাবেননা।কেননা উকমার্সের জন্য আপনি ফ্রি, পেইড মিলে প্রায় সহস্রাধিক প্লাগিনস খুঁজে পাবেন।তাছাড়া এমন শত শত উকমার্স রেডি ওয়ার্ডপ্রেস থিম রয়েছে যেগুলোতে আরো অনেক ফিচার পাওয়া যায়।

আপনাদের সার্বিক সহযোগিতার ফোরসাইট আইটি ইন্সটিটিউট সর্বদা আপনাদের পাশে রয়েছে। যে কোন ব্যাপারে যদি আপনাদের কোন সমস্যা বা সন্দেহ বা কোন কিছু জানার থাকলে আমাদের এক্সপার্টদের সাথে কথা বলতে পারেন।

আমাদের মাদার কম্পানি এবং সিস্টার কম্পানিঃ  Foresight IT  & Shopno Career IT

সব ধরনের আইটি টিউটোরিয়ালের জন্য আমাদের Youtube Channel link: Foresight IT Institute

Share this Post